নারী-পুরুষ সম্মিলিত ভাবে কাজ করে ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত বাংলাদেশ গড়তে হবে : বাণিজ্যমন্ত্রী

 প্রকাশ: ২৪ নভেম্বর ২০২২, ০৭:৪৬ অপরাহ্ন   |   রাজনীতি

নারী-পুরুষ সম্মিলিত ভাবে কাজ করে ২০৪১  সালের মধ্যে উন্নত বাংলাদেশ গড়তে হবে : বাণিজ্যমন্ত্রী

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি,এমপি বলেছেন,  পিছিয়ে পরা নারীদের এগিয়ে নিতে সম্মিলিত ভাবে কাজ করতে হবে। আমাদের দেশের নারীরা ইতোমধ্যে অনেক এগিয়ে গেছেন। শিক্ষা ক্ষেত্রে উপস্থিতি প্রায় সমান সমান, রেজাল্টে অনেক ক্ষেত্রে নারীরা এগিয়ে থাকে। কর্মক্ষেত্রে নারীরা গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছেন। সকল কর্মক্ষেত্রেই এখন নারীদের সরব উপস্থিতি দেখা যাচ্ছে। কোন কর্মক্ষেত্রেই নারীরা এখন আর পিছিয়ে নেই, দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করছেন। নারীরা পুরুষের মতো সমান কাজ করতে পারে তা এখন প্রমানীত। দেশের উন্নয়নে নারীরা এখন সমান অবদান রাখছেন। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে এবং নেতৃত্বে আমরা মহান মুক্তিযুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করেছি, আজ তারই কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক মুক্তির পথে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। আমাদের দেশের জনসংখ্যার আর্ধেক নারী। এ বিপুল সংখ্য জনগোষ্টিকে সাথে না নিয়ে এগিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। নারী সমাজ এগিয়ে এসেছে জন্যই আমরা আজ বর্তমান অবস্থানে। আমাদেরে দায়িত্ব নারী সমাজকে সহযোগিতা করা এবং একসাথে কাজ করে এগিয়ে যেতে হবে। এজন্য আমাদের কিছু মানুষিকতার পরিবর্তন দরকার। নারীর কাজরে মূল্যায়ন করতে হবে। সুযোগ দিতে হবে নারীদের এগিয়ে যাবার। সারা বিশ্বেই নারীরা পুরুষের সমান তালে কাজ করে যাচ্ছে। নারী ও পুরুষের মধ্যে কোন পার্থক্য নেই, দায়িত্ব সবার সমান। নারীকেও নিজ প্রচেষ্টায় ঘর থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। নারী ও পুরুষ সম্মিলিত ভাবে দেশের কাজ করে ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি উন্নত দেশে পরিনত করতে হবে।


বাণিজ্যমন্ত্রী আজ (২৪ নভেম্বর) ঢাকায় রেডিসন ব্লু হোটেলের মল্লিকা হলে বাংলাদেশ ইনভেষ্টমেন্ট ডেভেলপমেন্ট অথরিটি (বিডা) আয়োজিত ইন্টারন্যাশনাল উইম্যান এন্টারপেনার্স সামিট-২০২২ এর দ্বিতীয় দিনে উইম্যান ইন বিগ ইন্ডাষ্ট্রিজ প্রোভাইডিং ব্যাকোয়ার্ড লিংকেজ ফর স্মলার ইন্ডাস্ট্রিজ শীর্ষক সপ্তম সেশনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

হার স্টোরি ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা জেরিন মাহমুদ হোসেইন এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিষয়ের উপর মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বার্জার প্রিন্টস বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যাবস্থাপনা পরিচালক এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রুপালী চৌধুরী। অনুষ্ঠানে অনলাইনে যুক্ত হয়ে বক্তব্য রাখেন জাপানের এ্যাম্বাসেডর আইটিও নাওকি। এছাড়া অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন স্কয়ার গ্রুপের ডেপুটি ডাইরেক্টর অনিকা চৌধুরী, টাইগার নিউ এনার্জির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিকোলে জিংওয়েন মাও, সেভেন রিং সেমেন্ট এর পরিচালক অরুশা খান, ওয়ান্ডার উইম্যান এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সাবিরা মেহরিন।


রাজনীতি এর আরও খবর: